দায়িত্বে ফিরেই বিশ্বকাপের ঘটনাই আবার ঘটনালেই সেই রেফারি

কাতার বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা ও নেদারল্যান্ডসের ম্যাচ পরিচালনা করেন অ্যান্তোনিও মাতেও লাহোজ। ওই ম্যাচে তিনি ১৮টি কার্ড দেখান তিনি। বাদ যাননি সহকারী রেফারি পর্যন্ত। কোয়ার্টার ফাইনালের ওই ম্যাচের পরে বিশ্বকাপে আর দায়িত্ব পালনের সুযোগ দেওয়া হয়নি তাকে।

এরপর শনিবার রাতে বার্সেলোনার বিপক্ষে স্পানিওয়েল লা লিগা ম্যাচে দায়িত্বে ফেরেন তিনি। ফিরেই যেন ‘কার্ড দেওয়ার নে'শা’ চেপে বসে তার। তিনি দুই দলের খেলোয়াড়দের ১৭টি কার্ড দেখিয়েছেন। দ্বিতীয় হলুদ কার্ডের কারণে দু’জন লাল কার্ডও দেখেছেন।

ম্যাচটিও বার্সেলোনা ১-১ গোলের সমতা করে মাঠ ছেড়েছে। বছর শেষ করেছে হতাশার ফলাফলে। ক্যাম্প ন্যুতে ম্যাচের ৭ মিনিটে মা'র্কোস অ্যালোনসো গোল করে বার্সাকে প্রথম লিড এনে দেন। এরপর বলের পজিশন ধরে রেখে মোট ১৬টি আক্রমণ করলেও দ্বিতীয় গোলের দেখা পায়নি কাতালানরা। বরং ৭৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে সমতায় ফেরে বার্সার নগরপ্রতিদ্বন্দ্বী স্পানিওল।

ম্যাচে লাহোজ ২৫ মিনিটে কার্ড দেওয়া শুরু করেন। প্রথম কার্ড খান আনসু ফাতি। প্রথমা'র্ধে চারটি কার্ড দেখান তিনি। বাকি কার্ডগুলো তিনি দেখিয়েছেন দ্বিতীয়ার্ধে। বার্সার ডিফেন্ডার জর্ডি আলবাকে ৭৪ মিনিটে তিনি প্রথম কার্ড দেখান। ৭৮ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দিয়ে লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠ থেকে বের করে দেন।

তেমনি স্পানিওয়েলে ভিনিসিয়াস সৌজা ৭৪ মিনিটে দেখেন প্রথম হলুদ কার্ড। তাকে ৮০ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দিয়ে লাল কার্ড দেখিয়ে সাইড বেঞ্চে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। তার ওই কার্ড দেখানোর খেলা চলতে থাকে যোগ করা সময় পর্যন্ত।

বার্সার রাফিনহা, স্পানিওয়েল জাভি পাওদো শেষ বাঁশির আগে কার্ড দেখেন। কার্ড দেওয়া হয় বার্সার কোচ জাভিকেও। ম্যাচ শেষে সংবাদ মাধ্যম গোল প্রশ্ন তুলেছে, কেন সবসময় বার্সার ম্যাচে লাহোজকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। এর আগেও কাতালান দলটির বি'রুদ্ধে গেছে তার অনেক সিদ্ধান্ত।

Back to top button