প্রে'মিকাকে জড়িয়ে ধরে বাইক চালাচ্ছে যুবক, গ্রে'প্তার দু’জনেই

ভালোবাসা ও আবেগের প্রকাশ ও আবেগ ভিন্ন ভিন্ন সংস্কৃতিতে ভিন্ন রকম হয়। ভালোবাসার স'ম্পর্কে আবেগ বেশ গুরুত্বপূর্ণ, আবার এই আবেগ অনুভূতির প্রকাশ হতে হয় গো'পনে, কেউ কদাচিৎ তা দেখে ফেললে ভীষণ সমালোচনার মুখে পড়েতে হয়।তেমনই এক ঘটনা ঘটেছে ভা'রতের অন্ধ্র প্রদেশে।

সেখানে চলন্ত মোটরসাইকেলে প্রে'মিক-প্রে'মিকা একে অ'পরকে জড়িয়ে ধ'রার একটি ভিডিও ভাই'রাল হওয়ার পরে ওই দু’জনকে গ্রে'প্তার করা হয়েছে।এজ শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভা'রতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস নাউ।

এছাড়া একাধিক ভা'রতীয় গনমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, প্রে'মিকাকে কোলে নিয়ে প্রে'মিকের বাইক চালানোর ওই ভাই'রাল ভিডিওটি বিশাখাপত্তনমের স্টিল প্ল্যান্ট রোডে ধারণ করা হয়েছে। ভাই'রাল ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, প্রে'মিকাকে কোলে নিয়ে বাইক চালাচ্ছে প্রে'মিক যুবকটি। অর্থাৎ প্রে'মিক-প্রে'মিকা মুখোমুখি। চলন্ত বাইকে তেল ট্যাংকের ওপরে উল্টো হয়ে বসে প্রে'মিককে আলি'ঙ্গন করে আছে প্রে'মিকা। ভিডিও ফুটেজে মেয়েটিকে কলেজ ড্রেস পরে থাকতে দেখা যায়। ভাই'রাল এই ভিডিওটি তৃতীয় কোনও ব্যক্তি তোলেন। পরে সেটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাই'রাল হয়ে যায়।

আর এতেই ঘটে বিপত্তি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি ভাই'রাল হওয়ার পর তা দেখে তৎপর হয় পু'লিশ। মূলত এরপরই ওই প্রে'মিক-প্রে'মিকার বি'রুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়। ভিডিওতে যে যুবতীকে বাইকের তেল ট্যাংকে উল্টো হয়ে প্রে'মিককে জড়িয়ে ধরে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে, তার নাম কে শৈলজা। বয়স ১৯ বছর। আর বাইকচালক অর্থাৎ প্রে'মিকের নাম অজয় কুমা'র। তার বয়স ২২ বছর। অবহেলার মাধ্যমে বেপরোয়া ভাবে গাড়ি চালানোর অ'ভিযোগে ওই প্রে'মিক-প্রে'মিকার বি'রুদ্ধে মা'মলা দায়ের করা হয়। এর আগেই শৈলজা ও অজয় কুমা'রকে পু'লিশ গ্রে'প্তার করে।

জানা যায়, মূলত অ'ভিযু'ক্ত দু’জনের বি'রুদ্ধে মোটর ভেহিকেল আইনের ৩৩৬, ২৭৯, ১২৯, ১৩২ ধারায় পু'লিশ মা'মলা নথিভুক্ত করে। পাশাপাশি ট্রাফিক আইন অমান্য করায় বাইকটিও জ'ব্দ করেছে পু'লিশ।এছাড়া বিশাখাপত্তনমের পু'লিশ কমিশনার সিএইচ শ্রীকান্ত মানুষকে ট্রাফিক আইন মেনে চলার পরাম'র্শ দিয়েছেন।অবশ্য এই ধরনের ঘটনা ভা'রতে এটিই প্রথম নয়। এর আগে ২০১৯ সালে অনুরূপ একটি ঘটনায় দিল্লির এক দম্পতি চলন্ত বাইকে একে-অ'পরকে চুম্বন করার পর বেশ ঝামেলায় পড়েছিলেন।

Back to top button