মৃ'ত্যুই জীবনের সমাপ্তি: তসলিমা নাসরিন

ভা'রতীয় উপমহাদেশের অন্যতম আপোসহীন নারীবাদী লেখিকা তসলিমা নাসরিন।লেখালেখির পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় তিনি।সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যমে একের পর এক পোস্ট দিচ্ছেন বির্তকিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

অ'ভিযোগ, দিল্লির চিকিৎসকেরা তার ভুল চিকিৎসা করেছে। অকারণে তার হিপ রিপ্লেসমেন্ট সার্জারি করা হয়েছে। এর ফলে সারা জীবনের মতো তিনি পঙ্গু হয়ে গেছেন। যদিও চিকিৎসকদের দাবি, তসলিমা আবার হাঁটা-চলা করতে পারবেন।

বর্তমানে ভুল চিকিৎসার শিকার হওয়ায় নিজেকে ধিক্কারও জানাচ্ছেন এই নারীবাদী লেখিকা। এবার এক স্ট্যাটাসে জানালেন, মৃ'ত্যুই জীবনের সমাপ্তি। তবে তার জীবনে শনিবার দুপুর বেলায় কোনো সমাপ্তি আনেনি মৃ'ত্যু। রোববার (২২ জানুয়ারি) দুপুর আড়াইটার দিকে ফেসবুকে এমনটাই জানালেন তসলিমা।

তসলিমা লেখেন, ‘মৃ'ত্যুই জীবনের সমাপ্তি। কিন্তু মৃ'ত্যু আমা'র জীবনে কোনো সমাপ্তি আনেনি শনিবার দুপুর বেলায়। শনিবার দুপুর বেলায় আচ'মকা কিছু লোক অন্ধকার থেকে উঠে এসে আমা'র চোখ বাধলো প্রথম, তারপর হাত ও দুটো পা। এরপর আরও গভীর অন্ধকারে নিয়ে গিয়ে আমা'র খুলি খুলে মস্তিষ্ক বের করে নিল, বুক খুলে হৃদপিণ্ড।

লেখিকা আরও লেখেন, ‘আমি এখনো অন্ধকারে পড়ে আছি। তবে আমি শ্বা'স নিচ্ছি এখন। কারণ ফুসফুস দুটো এখনো বেঁচে আছে। এখনো হাত দুটো শূন্যে মেলে দিতে পারছি। এখনো চি'ৎকার করতে পারছি, বলতে পারছি—কার কী' ক্ষতি করেছিলাম?

Back to top button