১০ বছরের জে’ল হচ্ছে সুশান্তের প্রে'মিকা রিয়ার!

বলি’উডের প্রয়াত অ'ভিনেতা সুশান্ত সিং রা’জপুতে’র বান্ধ’বী রিয়া চ’ক্রব’র্তীকে গেল মঙ্গ’লবার (৮ আগস্ট) গ্রে’প্তার করেছে নার’কো’টিক্স কন্ট্রো’ল ব্যুরো (এনসিবি)। গ্রেপ্তা’রের পর রিয়ার বিরু’দ্ধে চার্জ’শিট দাখিল করেছে এনসিবি।

তার বি’রুদ্ধে সু’শা’ন্তকে মাদ’ক জোগা’নের অ'ভি’যোগ আ’না হয়েছে। এই অ'ভি’যোগ প্রমা’ণিত হলে ১০ বছর পর্যন্ত জে'ল হতে পারে রিয়ার। অ'ভি’নেত্রী’র বি’রু’দ্ধে এন’সিবির পা’ওয়া তথ্য-প্রমাণে সেই আশ'ঙ্কাই প্রবল হচ্ছে।

এনসি’বির জিজ্ঞা’সাবাদে রিয়া নিজে’ই স্বী’কার করেছেন যে, তিনি সুশা’ন্তের জন্য মা'দক কিনতেন এবং জো’গান

দিতেন। পাশা’পাশি এও দাবি ক’রেন যে, তিনি নিজে কখনো মা'দক নিতেন না। মঙ্গ’লবার রাতে অ’ভিনেত্রীর মেডিকে’ল পরী’ক্ষা হয়। তাতেও প্রমা’ণ হয়েছে যে, রি’য়া মা’দক নিতেন না। মা’দক-যো’গে এর আগে গত শু’ক্রবা’র রিয়ার ছোট ভাই শৌ’ভিক চ’ক্রব’র্তীকে গ্রে’প্তা’র করে এনসিবি।

তার পরই রিয়াকে পরপর তিনদিন জি’জ্ঞাসাবাদ করে তারা। তৃতীয় দিনে ছোট ভাই শৌ’ভিককে সামনে বসিয়ে

জিজ্ঞা’সাবাদ করতেই ভেঙে পড়েন রিয়া। ক’বুল করে নেন, সুশান্তের জন্য তিনি মা'রি’জুয়া’নাসহ নানা ধরনের মাদ’কের জোগান দিতে’ন।

এর আগে শু’ক্র’বার রাতে মা’দ’কের ‘সঙ্গে সংশ্লি’ষ্টতার’ অ'ভিযো’গে গ্রেফ’তার করা হয় রিয়ার ভাই শৌ’ভিক

চক্রবর্তীকে। এ ছাড়া গ্রে’ফতার র’য়েছেন সু’শান্তে’র সা’বেক ম্যানে’জার স্যা’মুয়েল মি’রান্ডা ও ক’র্মচা’রী দীপেশ সবন্তক। ৯ সে’প্টেম্বর পর্যন্ত এনসিবির হে’ফাজ’তে তারা থাক’বেন।

Back to top button