তাহসান-মিথিলা-ফারিয়ার গ্রে'ফতার নিয়ে যা বললেন ডিসি সাজ্জাদুর রহমান

ই-কমা'র্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির হয়ে অর্থ আত্মসাতের অ'ভিযোগে তাহসান খান, রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও শবনম ফারিয়াসহ নয়জনের বি'রুদ্ধে একটি মা'মলা দায়ের করা হয়েছে। এই মা'মলায় যেকোনো সময় তাদের গ্রে'ফতার করা হবে বলে জানিয়েছেন ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান।

তিনি বলেন, রাজধানীর ধানমন্ডি থা'নায় গত ৪ ডিসেম্বর ইভ্যালির এক গ্রাহকের করা মা'মলায় তারা নজরদারিতে রয়েছেন।

শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

তাহসান-মিথিলা-ফারিয়াসাজ্জাদুর রহমান বলেন, চট'কদার বিজ্ঞাপন ও বেশি মুনাফার লো'ভ দেখিয়ে হাজারো গ্রাহককে এরইমধ্যে পথে বসিয়েছে ই-কমা'র্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি। এমন অ'ভিযোগে এক ব্যক্তি মা'মলা করেছেন। প্রতিষ্ঠানটির প্রতারণার শুরু থেকে সংযু'ক্ত করা হয়েছিল নামিদামি তারকাদের।

অনেকের অ'ভিযোগ জনপ্রিয় এসব তারকাদের দেয়া মিথ্যা প্রতিশ্রুতির ফাঁদে পা দিয়েই সর্বস্বান্ত হয়েছেন তারা। এবার তাদের বি'রুদ্ধেও মা'মলা করেছেন সাদ স্যাম রহমান নামে এক ভুক্তভোগী। ইভ্যালি প্রতারণার মা'মলায় যেকোনো সময় গ্রে'ফতার করা হবে জনপ্রিয় তারকা তাহসান, অ'ভিনেত্রী মিথিলা এবং শবনম ফারিয়াকে। তারা আমাদের নজরদারিতে রয়েছেন।

মা'মলার এজাহারে সাদ স্যাম রহমান অ'ভিযোগ করেন, ইভ্যালি থেকে তিন লাখ ১৮ হাজার টাকায় মোটরসাইকেল অর্ডার করেছিলেন তিনি। কিন্তু তাকে পণ্য ডেলিভা'রি দেয়া হয়নি, টাকাও ফেরত পাননি।

মা'মলায় আ'সামি করা হয়েছে নয় জনকে। ইভ্যালির এমডি রাসেল ও তার স্ত্রী' শামীমা ছাড়াও মা'মলায় পাঁচ নম্বর আ'সামি করা হয়েছে সঙ্গীত শিল্পী তাহসানকে। আট ও নয় নম্বর আ'সামি করা হয়েছে অ'ভিনেত্রী শবনম ফারিয়া ও রাফিয়াদ রশিদ মিথিলাকে।

রমনা ডিসি জানিয়েছেন, গুরুত্ব দিয়ে মা'মলা'টি ত'দন্ত করা হচ্ছে।

Back to top button