সিনেমায় নায়িকা ‘সংকট’, যা বললেন শাবনাজ

বাণিজ্যিক ঘরানার সিনেমায় নায়িকা–সংকটে ভুগছে ঢাকাই সিনেমা অঙ্গন। তবে নায়িকা সংকটের বিষয়টি মানতে নারাজ অনেক পরিচালক- প্রযোজক। তাদের মতে, নায়িকা আছেন কিন্তু দর্শক গ্রহণযোগ্য নায়িকার সংকট আছে।

পরীমনি, অ'পু বিশ্বা'স, মাহিয়া মাহি, বিদ্যা সিনহা মিম, ববি, নুসরাত ফারিয়া, শবনম বুবলী, পূজা চেরি. দীঘির মতো নায়িকারাও সিনেমা হলে দর্শক টানতে ব্যর্থ হচ্ছেন। যে কারণে পরিচালকরা নতুন মুখের সন্ধানে নেমেছেন বলে খবর।
তবে এটাও কোনো সমাধান নয় বলে জানিয়েছে গুণী নির্মাতা সোহানুর রহমান সোহান।

সোহানসহ চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা মনে করেন, শাবানা, ববিতা, চ'ম্পাদের পর তাদের জায়গা দখল করেন শাবনাজ, শাবনূর, মৌসুমী, পপি, পূর্ণিমা। তারা দর্শকের মন জয় করে নেন। সেই সময় নায়কদের পাশাপাশি এই নায়িকাদের নামেও সিনেমা চলত। কিন্তু গত দেড় দশকে সেই অবস্থা আর নেই।

দেশের চলচ্চিত্রে নায়িকাদের এমন নাজুক অবস্থান কেন? সে প্রসঙ্গে এক সময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা শাবনাজ বলেন, ‘আমা'র প্রথম ছবি চাঁদনী ছিল নায়িকার নাম দিয়েই। আমি ২২টি ছবিতে অ'ভিনয় করেছি। এর মধ্যে পাঁচ-ছয়টি ছবি ছিল নায়িকার নামে। তারও আগে শাবানা আপা, ববিতা আপাদের নামে সিনেমা চলত। কিন্তু এখন কি সেই ধরনের গল্পে ছবি তৈরি হচ্ছে? আমাদের সময় একেকজন পরিচালক একেকভাবে আমাদের উপস্থাপন করেছেন। এতে দর্শক ভিন্ন কিছু পেয়েছেন। দর্শকও গ্রহণ করেন আমাদের। এখন তা কোথায়?’

নায়িকাদের এ ব্যর্থতার কারণ হিসেবে শাবনাজ মনে করেন, ভালো গল্প এর অন্যতম কারণ। নায়িকাদের কাজ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

শাবনাজ বলেন, ‘এখন ভালো গল্প, ভালো চিত্রনাট্যের অভাব আছে। তা ছাড়া আমাদের সময় যেসব নায়িকা ইন্ডাস্ট্রিতে ভালো করেছেন, পারিশ্রমিকের সঙ্গে সঙ্গে ভালো কাজের তাগিদটাও বেশি ছিল তাদের। এখন যারা কাজ করছেন, তাদের পারিশ্রমিকের দিকে নজরটা একটু বেশি থাকে।’

Back to top button