মধ্যরাতে বাঁধনকে মেসেজ দিয়েছিলেন সৃজিত!

দুই বাংলাতেই সমান জনপ্রিয় ভা'রতের খ্যাতিমান চলচ্চিত্র পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’ সিরিজ়ের কাজ করেছিলেন আজমেরি হক বাঁধন।

সিরিজে তিনিই হয়েছিলেন মু'সকান জাবেরি। আর এই সিরিজটির মধ্যে দিয়েই কলকাতায় কাজের দ্বার খোলে এই অ'ভিনেত্রীর। তবে এতে বাঁধনের যু'ক্ত হওয়ার গল্প একটু ‘সিনেমাটিক’ বলা যায়।

তবে ঠিক কী'ভাবে সৃজিতের সিরিজ়ে কাজের সুযোগ আসে বাঁধনের? সেকথাই সম্প্রতি এক ভা'রতীয় গনমাধ্যিমে জানিয়েছেন এই অ'ভিনেত্রী । অনেকেই ভাবতে পারেন, স্ত্রী' মিথিলাকে সুযোগ না দিয়ে কেন বাঁধনকে বেছে নিয়েছিলেন সৃজিত? সে উত্তরও দিয়েছেন বাঁধন। অ'ভিনেত্রী জানান, ‘আমি প্রথমে সৃজিতের মেসেজ ফেক (ভু'য়া) বলে মনে করি। ঘটনাটি করো'না পরিস্থিতির একদম শুরুর দিকে। হঠাৎ রাতে সৃজিতের পক্ষ থেকে মেসেজ আসায় মনে হয়েছিল, এই সময় সৃজিত কি আমায় নিয়ে সিরিজ়ের কথা ভাবছেন, এটা সম্ভব!

পরে অবশ্য অ'ভিনেত্রীর সংশয় কে'টে যায়। কেননা ঠিক পরের দিন আমাদের বাংলাদেশের এক প্রযোজক কনফারেন্স কলে আমা'র সঙ্গে সৃজিতের কথা বলিয়ে দেন। তার পর আমা'র বিশ্বা'স হয়।’ পরে ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’ ওয়েব সিরিজে কাজ করেন বাঁধন। কাজটি প্রকাশও পায়। বাঁধন কাজটি দিয়ে প্রশংসিত হন।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালে নিজের থেকে ২০ বছরের বড় মোশরুর হোসেন সিদ্দিকী' সনেট'কে বিয়ে করেছিলেন বাঁধন। ২০১৪ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয়। কেন এত বড় বয়সের মানুষকে বিয়ে করেছিলেন— এ প্রশ্নেরও মুখোমুখি হতে হয়েছিল বাঁধনংগঅ'ভিনেত্রী সে সময় জানিয়েছিলেন টাকার জন্য তিনি বিয়েটা করেননি। করেছিলেন সুখে সংসার করার জন্য। কিন্তু নিজের এই বিয়েকে জীবনের সবচেয়ে বড় ভুল হিসেবেই ব্যাখ্যা করেছিলেন বাংলাদেশি নায়িকা। এখন মে'য়েকে নিয়ে ভালো আছেন তিনি।বিচ্ছেদের পর নিজের পড়াশোনা শেষ করেছিলেন। তারপর অ'ভিনেত্রী হিসেবে সফর শুরু করেন। তার অ'ভিনীত ছবি ‘রেহানা ম'রিয়ম নূর’ প্রথম বাংলাদেশি সিনেমা হিসেবে কান চলচ্চিত্র উৎসবে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচিত হয়েছিল।

Back to top button