কান্দাহার ছেড়ে পালাচ্ছে মানুষ

কান্দাহার ঘিরে ফেলেছে তা'লেবান। শহরের প্রা'ণকেন্দ্রে না এলেও, নিয়মিত তারা শহরে ঢুকে শত্রুদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে। খবর রয়টার্স ও আল জাজিরার।

অ'প'রাধ তিনি আ'ফগা'ন পু'লিশ ফোর্সে চাকরি করতেন। তাই গত সপ্তাহে দুর মোহাম্ম'দের ভাইপোকে তুলে নিয়ে গিয়েছিল তা'লেবান বাহিনী। চারদিন তার কোনো খবর পাওয়া যায়নি। সূত্র মা'রফত দুর মোহাম্ম'দ জানতে পেরেছেন, তার ভাইপোকে প্রকাশ্য রাস্তায় হ'ত্যা করা হয়েছে। ৪২ বছরের দুর সারা জীবন কান্দাহার ছেড়ে কোথাও যাননি। কিন্তু এখন তিনি পালানোর পরিকল্পনা করছেন।

কান্দাহার ছেড়ে বহু মানুষ পালিয়ে যাচ্ছেন। এখনো কাবুল যাওয়া যাচ্ছে বিমানে। বহু মানুষ সেই সুযোগের সদ্ব্যবহার করছেন। কারণ স্থলপথ বন্ধ। গোটা কান্দাহার ঘিরে ফেলেছে তা'লেবান। স্থানীয় বাসিন্দাদের বক্তব্য, বাচ্চাদের স্কুলে পাঠানো যাচ্ছে না। দোকানপাট অধিকাংশ সময়েই বন্ধ থাকছে। খোলা থাকলেও তারা যেতে ভ'য় পাচ্ছেন। কারণ, গোটা সীমানা জুড়ে লড়াই চলছে। শহরের প্রা'ণকেন্দ্রে তা'লেবান একটি গুরুত্বপূর্ণ সরকারি ভবনও দখল করেছে বলে শোনা গেছে।

সম্প্রতি মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। সেখানে বলা হয়েছে, তা'লেবান সাধারণ মানুষকেও আক্রমণ করছে। প্রকাশ্য রাস্তায় তাদের হ'ত্যা করা হচ্ছে। এখু'নি এ ঘটনা বন্ধ হওয়া দরকার। তাদের বক্তব্য, সরকারি কর্মী অথবা সরকারের কোনো কাজের সঙ্গে যু'ক্ত ব্যক্তিদের বাড়িতে ঢুকে তল্লা'শি চালাচ্ছে তা'লেবান। তাদের তুলে নিয়ে গিয়ে হ'ত্যা করা হচ্ছে। জাতিসংঘও সম্প্রতি এ বিষয়ে একটি বিবৃতি দিয়েছে। যেখানে সবপক্ষকেই মানবাধিকারের কথা মা'থায় রাখতে বলা হয়েছে।

তা'লেবান অবশ্য এ কথা মানতে রাজি হয়নি। তাদের বক্তব্য, যাবতীয় মানবাধিকার মেনেই তারা লড়াই করছে। কান্দাহারে সাংবাদিকদের একটি দল নিয়ে গিয়ে তারা পরিস্থিতি দেখাবে বলে জানিয়েছেন তা'লেবান মুখপাত্র। তার দাবি, ইস'লামের আইন মেনেই তারা কান্দাহারে লড়াই করছেন।

এদিকে বেশ কয়েকজন সাংবাদিককে কান্দাহারে আ'ট'ক করেছে আ'ফগা'ন সরকার। অ'ভিযোগ, টেলিভিশন এবং রেডিও-র ওই সাংবাদিকরা প্রোপাগান্ডা ছড়াতে সেখানে গিয়েছিলেন। অ্যামনেস্টি দ্রুত ওই সাংবাদিকদের রেহাইয়ের ব্যবস্থা করতে বলেছে। বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন সাংবাদিকদের ছাড়ার ব্যাপারে সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করছে।

Back to top button