বস্তাব'ন্দি অবস্থায় ট্রাক থেকে ২১০ অ'ভিবাসী উ'দ্ধার

ট্রাক থেকে বস্তাব'ন্দি অবস্থায় ২১০ জন অ'ভিবাসীকে উ'দ্ধার করেছে মেক্সিকোর ন্যাশনাল মাইগ্রেশন ইনস্টিটিউট। শনিবার (৪ ডিসেম্বর) ডয়েচে ভ্যালে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায়।

এর আগে শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) পুয়েবলা রাজ্যের একটি চেকপোস্টে ট্রাকটি পু'লিশের নির্দেশনা অগ্রাহ্য করে চলে যায়। পরে সেটিকে ধাওয়া করে টেকামাচালকো শহরের কাছ থেকে আ'ট'ক করা হয়।

পরে তল্লা'শি চালিয়ে ট্রাকের ভেতর থেকে নারী পুরুষ ও শি'শুদের উ'দ্ধার করা হয়। এসময় তারা ট্রাকে বিভিন্ন আসবাবের ভেতর লুকিয়ে ছিলেন। এসময় ট্রাকচালককে আ'ট'ক করে পু'লিশ।

গত কয়েক বছরে মেক্সিকোতে অ'ভিবাসী সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে। লাতিন আ'মেরিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ভিবাসনপ্রত্যাশীরা মেক্সিকো হয়ে যু'ক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের চেষ্টা করে।

২০১০ সালে ভ'য়াবহ ভূমিকম্পের পর উত্তর আ'মেরিকার দেশগুলোতে পাড়ি জমানোর চেষ্টা করছে হাইতির অ'ভিবাসীরা। তারা এখন উন্নত জীবনযাপনের আশায় যু'ক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমাতে চাইছেন।

\এর আগে মেক্সিকোর দক্ষিণাঞ্চল থেকে বাংলাদেশসহ ১২টি দেশের ৬ শতাধিক অ'ভিবাসনপ্রত্যাশীকে উ'দ্ধার করা হয়।

এদের মধ্যে ৩৭ বাংলাদেশি রয়েছেন বলে জানা গেছে। মধ্য আ'মেরিকা ও বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলের অ'ভিবাসন প্রত্যাশীদের অ'বৈধভাবে যু'ক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের অন্যতম মাধ্যম মেক্সিকো সীমান্ত। আর তাই সারা বছরজুড়েই মেক্সিকো সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্টে ভিড় করতে দেখা যায় এসব অ'ভিবাসন প্রত্যাশীদের।

এরই ধারাবাহিকতায় এবার ট্রেইলার ট্রাকের পেছনে করে লুকিয়ে সীমান্ত অ'তিক্রম করার সময় মেক্সিকোর ভেরাক্রজ থেকে উ'দ্ধার করা হলো ৬ শতাধিক অ'ভিবাসন প্রত্যাশীকে। উ'দ্ধারকৃতদের মধ্যে মধ্য আ'মেরিকার অন্তত ১২টি দেশের নাগরিক রয়েছেন বলে জানা গেছে। এছাড়াও, এদের মধ্যে ৩৭ বাংলাদেশি রয়েছেন বলেও নিশ্চিত করেছে মেক্সিকো কর্তৃপক্ষ।

জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, উ'দ্ধারকৃতদের মধ্যে অধিকাংশই প্রতিবেশী গুয়াতেমালার নাগরিক। এদের মধ্যে অন্তত দেড়শ নারী ও শি'শু রয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়। অ'ভিবাসন প্রত্যাশীদের মধ্যে হন্ডুরাস, ডোমেনিকান প্রজাতন্ত্র, এল সালভাদোর এবং হাইতির নাগরিক রয়েছেন বলেও জানায় মেক্সিকো কর্তৃপক্ষ।

Back to top button