গু'লি করার নির্দেশ ও কারফিউও দমাতে পারছে না বি'ক্ষোভ!

শ্রীলঙ্কায় গণবি'ক্ষোভ সামাল দিতে গত সোমবার কারফিউ জারি করা হলেও তাতে কোনো কাজ হয়নি। কারফিউ ভেঙে বি'ক্ষোভ অব্যাহত রেখেছে সরকারবিরোধীরা।

বিক্ষুব্ধ প্রতিবাদকারীর সংখ্যা ক্রমে বাড়ছে। বি'ক্ষোভের তীব্রতা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে মঙ্গলবার ‘জনগণের সম্পত্তি ধ্বংসে লিপ্ত বি'ক্ষোভকারীদের’ দেখামাত্র গু'লি করার নির্দেশ দিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

প্রবল বি'ক্ষোভের মুখে গত সোমবার প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে সরে দাঁড়ান মাহিন্দা রাজা'পক্ষে। কিন্তু তাতে সরকারবিরোধী বি'ক্ষোভ একটুও প্রশমিত হয়নি। বরং বি'ক্ষোভকারীরা সদ্য পদত্যাগকারী মাহিন্দার বাসভবনে হা'মলা চালায়। তাঁর বাসভবন প্রাঙ্গণে কমপক্ষে ১০টি পেট্রল বো'মা ছোড়া হয় বলে জানান এক শীর্ষ নিরাপত্তা কর্মক'র্তা।

সরকারবিরোধী হাজার হাজার মানুষ গত সোমবার রাতভর প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন ঘিরে সহিং'স বি'ক্ষোভ করে। মাহিন্দাকে উ'দ্ধারে শেষ পর্যন্ত সাম'রিক বাহিনীকে মাঠে নামতে হয়। ভোররাতের এক অ'ভিযানে তাঁকে উ'দ্ধার করে সে'নাবাহিনীর একটি দল।

এদিকে মাহিন্দারই ছোট ভাই প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজা'পক্ষেরও পদত্যাগের দাবি করছে বিক্ষুব্ধ'রা। দাবির পক্ষে নিজেদের অবস্থান জানান দিতে বি'ক্ষোভস্থলে সরকারবিরোধীদের জমায়েত বাড়ছে বলে দাবি করেন বি'ক্ষোভকারীদের একজন চামাল পলওয়াতাগে।

২৫ বছর বয়সী তরুণ চামাল বলেন, ‘গতকাল (সোমবার) আমাদের ওপর যে হা'মলা হয়েছে, তাতে মানুষ ক্ষুব্ধ। গতকাল বিকেলে কারফিউ জারি করার পরও স্বেচ্ছাসেবকরা আমাদের খাবার ও পানি সরবরাহ করে যাচ্ছে। প্রেসিডেন্ট বিদায় না নেওয়া পর্যন্ত আম'রা রাজপথ ছাড়ব না। ’

চরম অর্থনৈতিক সংকটের জেরে শ্রীলঙ্কায় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পর্যন্ত দুষ্প্রাপ্য হয়ে উঠেছে। খাবার, ওষুধ, বিদ্যুৎ, জ্বালানি সব কিছুর অভাবে নাকাল লঙ্কানরা কয়েক সপ্তাহ ধরে রাজা'পক্ষে পরিবারের শাসনের অবসানের দাবিতে বি'ক্ষোভ করছে।

গত সোমবার রাজা'পক্ষেপন্থীরা সরকারবিরোধীদের ওপর সহিং'স হা'মলা চালালে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। এদিনের সহিং'সতায় একজন এমপিসহ কমপক্ষে পাঁচজনের মৃ'ত্যু হয়। জারি করা হয় কারফিউ। প্রথমে শুধু রাজধানী কলম্বোয় কারফিউ জারি করা হলেও শিগগির তা দেশজুড়ে কার্যকর করা হয়।

কারফিউ সত্ত্বেও গতকাল বি'ক্ষোভ অব্যাহত থাকায় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পথে মোতায়েন সে'না সদস্যদের নির্দেশ দিয়েছে, কাউকে ‘জনগণের সম্পত্তি ধ্বংস করতে দেখলে’ তাকে যেন সঙ্গে সঙ্গে গু'লি করা হয়।

Back to top button