লন্ডনে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে ‘দেশমান্য’ খেতাব দিল প্রবাসীরা

লন্ডনে প্রবাসীদের পক্ষ থেকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে ‘দেশমান্য’ খেতাবে ভূষিত করা হয়েছে।
শুক্রবার লন্ডনে লন্ডন এন্টারপ্রাইজ একাডেমিতে মাস হেলথ অ্যাওয়ারনেস সেন্টার আয়োজিত গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তাকে এ খেতাব দেওয়া হয়।

‘দেশমান্য’ খেতাব পেয়ে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বাংলাদেশে চলমান সংকট উত্তরণে জাতীয় সরকার প্রতিষ্ঠার দাবি জানান।

তিনি বলেন, হানাহানি আর দখলদারিত্ব কেউ চায় না। এই সরকার অন্যায় করে যে পরিস্থিতি তৈরি করেছে, তাতে তাকে বিদায় করা ছাড়া বিকল্প কিছু নেই।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘প্রবাসীদের কারণেই আমাদের অর্থনীতি, উন্নয়ন। আর সেই তাদের টাকা নিয়েই লুটপাট, সবকিছু হচ্ছে। তিনি দেশে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও গণতান্ত্রিক দুরবস্থার জন্য উদ্বেগ প্রকাশ করেন।’

মাস হেলথ অ্যাওয়ারনেস সেন্টারের চেয়ারম্যান কে এম আবু তাহের চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাপ্তাহিক সুরমা সম্পাদক শামসুল আলম লিটনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অ'তিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ড. হাসনাত এম হোসেন এমবিই।

অনুষ্ঠানে ‘গণস্বাস্থ্য মডেলে সবার জন্য স্বাস্থ্যসেবা: প্রবাসীদের ভূমিকা ও করণীয়’ শীর্ষক সেমিনার হয়। এতে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিস্ট এনাম চৌধুরী।

সাপ্তাহিক সুরমা সম্পাদক ও ভ'য়েস ফর গ্লোবাল বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক স'ম্পর্কবিষয়ক পরিচালক শামসুল আলম লিটন প্রবাসীদের পক্ষ থেকে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে ‘দেশমান্য’ খেতাবে ভূষিত করেন। এ সময় লিটন বলেন, দেশমান্য মানে হলো যাকে দেশের সব লোক মানে। একমাত্র তারাই ডা. জাফরুল্লাহকে মানে না, যারা সীমান্তের ওপারের প্রভুদের দাসত্ব করে।

Back to top button