ইংল্যান্ডের কাছে টি-২০ সিরিজও হারলো পা'কিস্তান

ওয়ানডে সিরিজের পর স্বাগতিক ইংল্যান্ডের কাছে টি-২০ সিরিজও হারলো সফরকারী পা'কিস্তান। ইংল্যান্ডের কাছে ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পর টি-টোয়েন্টি সিরিজও হাতছাড়া হয়ে গেল বাবর আজম'দের। তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে ৩ উইকে'টে জিতেছে ইয়োইন ন ম'রগানের দল। প্রথম ম্যাচ হারলেও শেষ পর্যন্ত ২-১ ব্যবধানে সিরিজ ঘরে তুলেছে ইংল্যান্ড।

গত রাতে ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভা'রে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫৪ রান করে পা'কিস্তান। দলের পক্ষে ব্যাট হাতে বড় ভূমিকা রাখেন মোহম্ম'দ রিজওয়ান। এই কিপার-ব্যাটসম্যান ৫৭ বলে তিন ছক্কা ও পাঁচ চারে অ'পরাজিত থাকেন ৭৬ রানে। এছাড়া ফখর জামান ২০ বলে ২৪ ও হাসান আলী ৯ বলে ১৫ রান করেন। ৩৫ রানে ৪ উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডের সফলতম বোলার আদিল রশিদ। এছাড়া মঈন আলি দখল করেন ১ উইকেট।

জয়ের জন্য ১৫৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করে নেমে পাওয়ার প্লেতে ৬ ওভা'রে ইংল্যান্ড করে ৪৫ রান। জেসন রয় এক প্রান্তে ব্যাট হাতে ঝড় শুরু করলেও অন্য প্রান্তে তার মতো সাবলীল ছিলেন না জস বাটলার। ইংল্যান্ডের ৬৭ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন লেগ স্পিনার শাদাব খান।

বাটলারের বিদায়ের পরেও চালিয়ে যেতে থাকেন রয়। ৩০ বলে পঞ্চাশ ছোঁয়ার পর হয়ে ওঠেন আরও আক্রমণাত্মক। শেষ পর্যন্ত উসমান কাদিরের বলে ধ'রা পড়েন লং অফে। বিদায়ের আগে ৩৬ বলে ৬৪ রান করেন তিনি। তার ইনিংসে ছিল ১২ চারের পাশে ছক্কা একটি।

জনি বেয়ারস্টো ও মইন আলির দ্রুত বিদায়ে জমে ওঠে ম্যাচ। ডেভিড মালানকে নিয়ে দলকে এগিয়ে নেন ম'রগান। ১৯তম ওভা'রে মালানকে বোল্ড করে হাফিজ। পরের বলে ছক্কা হাঁকান লিয়াম লিভিংস্টোন। হাফিজকে আবার ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ শেষ করার চেষ্টায় ক্যাচ দিয়ে ফিরেন তিনি।

জয়ের জন্য শেষ ওভা'রে প্রয়োজন ছিল ৬ রান। প্রথম বলেই আকাশে তুলে দিয়েছিলেন ম'রগান। ছুটে গিয়ে হাত ছোঁয়ালেও ক্যাচ মুঠোয় জমাতে পারেননি বোলার হাসান। লিভিংস্টোনের মতো পরের বলে ইংলিশ অধিনায়কও ছক্কায় ম্যাচ শেষ করার চেষ্টায় সীমানায় ক্যাচ দেন। ক্রিস জর্ডান পরপর দুই বলে দুটি ডাবলস নিয়ে দলকে পৌঁছে দেন জয়ের বন্দরে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
পা'কিস্তান: ২০ ওভা'রে ১৫৪/৬ (রিজওয়ান ৭৬*, বাবর ১১, মাকসুদ ১৩, হাফিজ ১, ফখর ২৪, শাদাব ২, ই'মাদ ৩, হাসান ১৫*; উইলি ২-০-১০-০, মাহমুদ ৩-০-৩৩-০, জর্ডান ৪-০-৩০-০, রশিদ ৪-০-৩৫-৪, লিভিংস্টোন ৩-০-২১-০, মইন ৪-০-১৯-১)

ইংল্যান্ড: ১৯.৪ ওভা'রে ১৫৫/৭ (রয় ৬৪, বাটলার ২১, মালান ৩১, বেয়ারস্টো ৫, মইন ১, ম'রগান ২১, লিভিংস্টোন ৬, জর্ডান ৪*, উইলি ০*; ই'মাদ ৪-০-২৫-১, আফ্রিদি ১-০-১৬-০, হাসান ৩.৪-০-২৮-১, কাদির ৪-০-৩৫-১, শাদাব ৩-০-২২-১, হাফিজ ৪-০-২৮-৩)

ফল: ইংল্যান্ড ৩ উইকে'টে জয়ী

সিরিজ: ৩ ম্যাচের সিরিজে ২-১ ব্যবধানে জয়ী ইংল্যান্ড
ম্যান অব দা ম্যাচ: জেসন রয়
ম্যান অব দা সিরিজ: লিয়াম লিভিংস্টোন

Back to top button