নতুন কোচ পেল পা'কিস্তান

পা'কিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নিয়েই বড় চ'মক দিলেন রমিজ রাজা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে সামনে রেখে নতুন কোচ পেতে যাচ্ছে বাবর আজম'রা।

কয়েকদিন আগেই পা'কিস্তানের প্রধান কোচের পদ থেকে পদত্যাগ করেন মিসবাহ উল হক। তার পাশাপাশি সরে দাঁড়ান পেস বোলিং কোচ কিংবদন্তি ওয়াকার ইউনিসও। এবার তাদের জায়গায় বসতে যাচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক কিংবদন্তি ম্যাথু হেইডেন। এছাড়া তার সঙ্গে কোচিং প্যানেলে আরও যু'ক্ত হচ্ছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক তারকা পেসার ভা'রনন ফিল্যান্ডার।

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) পিসিবির চেয়াম্যানের দায়িত্ব নিয়েই কোচ হিসেবে এ দুইজনের নাম ঘোষণা করেন রমিজ রাজা। খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছে ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোও।

বিশ্বকাপকে সামনে রেখে একপ্রকার তাড়াহুড়ো করেই কোচ হিসেবে হেইডেন আর ফিল্যান্ডারের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। যদিও মিসবাহ আর ওয়াকার ইউনিস পদত্যাগ করার পর এরই মধ্যে অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে বাবর আজম'দের দায়িত্ব আছেন সাকলায়েন মোশতাক আর আবদুল রাজ্জাক। আর তাই কোচিং প্যানেলে নতুন এই দুজনের অবস্থান কি হবে এ নিয়ে এখনো বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। এছাড়া প্রধান কোচের দায়িত্ব কার কাছে থাকবে, সেটাও খোলসা করা হয়নি।

তবে পিসিবির নতুন চেয়াম্যান বলেন, ‘হেইডেনের অস্ট্রেলিয়ার হয়ে বিশ্বকাপ জয়ের দারুণ অ'ভিজ্ঞতা রয়েছে। এছাড়া সে নিজেও চ'মৎকার একজন খেলোয়াড় ছিলেন। আমাদের ক্রিকেটারদের জন্য এটা দারুণ হবে, একজন অস্ট্রেলিয়ানের সঙ্গে ড্রেসিংরুম শেয়ার করা।’

এছাড়া ফিল্যান্ডার স'ম্পর্কে রমিজ রাজা বলেন, ‘সে নিঃস'ন্দেহে দারুণ একজন বোলার। আশা করি তার নেতৃত্বে আমাদের বোলাররাও বিশ্বকাপে ভালো করবে।’

খেলোয়াড়ি জীবনে এই দুই সাবেক ক্রিকেটার বেশ সফল হলেও পেশাগত জীবনে কোচ হিসেবে পা'কিস্তানই হতে যাচ্ছে তাদের প্রথম বড় দায়িত্ব। ২০২০ সালে জাতীয় দল থেকে অবসর নেওয়া ফিল্যান্ডার বলতে গেলে এখনো ক্রিকেটারই। অন্যদিকে, ২০০৯ সালে ক্রিকেট'কে বিদায় জানানো ম্যাথু হেইডেনের কোচ হিসেবে অ'ভিজ্ঞতা তেমন সমৃদ্ধ নয়। তবে কোচিং অ'ভিজ্ঞতা কম থাকুক, খেলোয়াড়ি অ'ভিজ্ঞতা দিয়েই তারা ভালো করবে বলে প্রত্যাশা পিসিবির।

এদিকে, সোমবারই আনুষ্ঠানিকভাবে পা'কিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন দেশটির সাবেক ক্রিকেটার ও জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজা। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে আগামী তিন বছরের জন্য এই দায়িত্ব পেয়েছেন তিনি। পিসিবির চেয়ারম্যান সাধারণত গভর্নিং বডির সদস্যদের ভোটে নির্বাচিত হন।

এবারের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ছিলেন ২ জন। রমিজের সঙ্গে সাবেক সরকারি কর্মক'র্তা আসাদ আলী খানকে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার অনুমোদন দেন পিসিবির চিফ প্যাট্রন প্রধানমন্ত্রী ও বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইম'রান খান। তবে শেষমুহূর্তে সরে দাঁড়ান আসাদ। ফলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পিসিবির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন রমিজ।

Back to top button