আইসিসি বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটারের মনোনয়ন পেলেন সাকিব

বাংলাদেশ দলের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ওয়ানডে ফরম্যাটে ২০২১ সালের সেরা ক্রিকেটার পুরস্কারে মনোনীত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) দুপুরে আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে এ খবর জানিয়েছে বিশ্ব ক্রিকে'টের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি।

সাকিব ছাড়াও এই পুরস্কারে মনোনয়ন পেয়েছেন পা'কিস্তানের বাবর আজম, দক্ষিণ আফ্রিকার জানেমান মালান ও আয়ারল্যান্ডের পল স্টারলিং। আগামী ১৭-১৮ জানুয়ারিতে এই পুরস্কার ঘোষণা করা হবে।

এর আগে টেস্ট ক্রিকেটার অব দ্য ইয়ার পুরস্কার মনোনীত হয়েছেন ভা'রতের রবিচন্দ্রন অশ্বিন, ইংল্যান্ডের জো রুট, শ্রীলঙ্কার দিমুথ করুনারত্নে ও নিউজিল্যান্ডের কাইল জেমিসন।

কুড়ি ওভা'রের ক্রিকে'টে বর্ষসেরার পুরস্কারের মনোনয়ন পেয়েছেন ইংল্যান্ডের জস বাটলার, অস্ট্রেলিয়ার মিচেল মা'র্শ, শ্রীলঙ্কার ভানিন্দু হাসারাঙ্গা ও পা'কিস্তানের মোহাম্ম'দ রিজওয়ান।

২০২১ সালে ওয়ানডে ক্রিকে'টে ৯ ম্যাচ খেলে ৩৯.৫৭ গড়ে দুই ফিফটির সাহায্যে ২৭৭ রান করেছেন সাকিব। পাশাপাশি বল হাতে মাত্র ১৭.৫২ গড়ে নিয়েছেন ১৭টি উইকেট। এই পারফরম্যান্সের সুবাদেই মনোনয়ন পেয়েছেন সাকিব।

এ বছরের সেরা ওয়ানডে খেলোয়াড়ের দৌড়ে থাকা বাকি তিনজনের মধ্যে বাবর আজম ছয় ম্যাচে দুই সেঞ্চু'রিতে করেছেন ৪০৫ রান, জানেমান মালান আট ম্যাচে দুইটি করে ফিফটি ও সেঞ্চু'রিতে করেছেন ৫০৯ রান এবং পল স্টারলিং ১৪ ম্যাচে তিন সেঞ্চু'রি ও দুই ফিফটিতে করেছেন বছরের সর্বোচ্চ ৭০৫ রান।

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে মনোনয়ন দেওয়ার বার্তায় যা লিখেছে আইসিসি

‘এক বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞাসহ দুই বছরের শা'স্তি কাটিয়ে ২০২১ সালের জানুয়ারিতে নিজের প্রত্যাবর্তনী সিরিজেই সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছেন সাকিব আল হাসান। ২০১৯ সালের জুলাইয়ের পর আর কোনো ওয়ানডে না খেললেও সাকিবের মধ্যে কোনো জড়তা দেখা যায়নি। সেই সিরিজে ১১৩ রান ও ৬ উইকেট নেন তিনি।

ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজটি তুলনামূলক খা'রাপ কে'টেছে। যেখানে তিন ম্যাচে মাত্র ১৯ রান ও ৩ উইকেট নিতে পেরেছেন তিনি। তবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে স্বরূপে ফিরে তিন ম্যাচে ১৪৫ রান ও ৮ উইকেট নেওয়ার মাধ্যমে বছরের দ্বিতীয়বারের মতো সিরিজসেরার পুরস্কার জেতেন সাকিব।

সাকিবের স্ম'রণীয় পারফরম্যান্স ছিল হারারেতে জিম্বাবুয়ে সফরের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে। যেখানে আগে ব্যাট করে ২৪০ রানের সংগ্রহ পায় স্বাগতিকরা। বল হাতে ১০ ওভা'রে ৪২ রান খরচায় ২ উইকেট নেন সাকিব। পরে ব্যাট হাতে ৬৩ রানের অ'পরাজিত ইনিংস খেলে দলকে ৩ উইকে'টের জয় এনে দেন তিনি।’

Back to top button